Showing all 2 results

Show sidebar

তালমিছরি

৳ 120.00
কিভাবে খাবেন/কেন খাবেন সর্দি, কাশি এবং গলা ব্যাথাতে বহু যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে তালমিছরি। ১ চা চামচ তালমিছরি, ১ চা চামচ ঘি আর অর্ধেক চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে মিশ্রণ বানিয়ে খেয়ে দেখুন, গলা ব্যাথা সেরে যাবে। গরমে হিট স্ট্রোক হলে- সমপরিমাণ ধনিয়া গুঁড়ার সাথে তালমিছরি গুঁড়া মিশিয়ে পানির সাথে পান করলে পেট ঠান্ডা হয়। হজমের অসুবিধাতে পেট ব্যাথা হলে, সমপরিমাণ নিমপাতা গুঁড়ার সাথে তালমিছরি গুঁড়া মিশিয়ে খেতে পারেন, পেট ব্যাথা চলে যাবে। সমপরিমাণ তালমিছরি আর এলাচ গুঁড়ো পানি মিশিয়ে পেস্ট করে মুখের আলসারে লাগিয়ে রাখুন, জ্বালা পোড়া কমবে। শিশুর মস্তিস্ক বিকাশেও ভুমিকা রাখে তালমিছরির পানি।এছাড়াও বাচ্চাদের নানা ধরনের রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। সাইনাস, মোবাইল/টিভি/কম্পিউটারে এক নাগাড়ে কাজ করে চোখের উপর চাপ পড়েছে? মাথা ব্যাথা করছে? সমপরিমাণ আদার রসের সাথে তালমিছরি গুঁড়া মিশিয়ে খেয়ে দেখুন। মাথা ব্যাথা কমে যাবে। প্রচুর পরিমানে আয়রন,পটাসিয়াম থাকার কারনে রক্তাপ্লতায় ভোগেন যারা তাদের জন্য আদর্শ তালমিছরি। আর্থ্রাইটিস, অস্টিওপরেসিস- হাড়ক্ষয়ের রোগে নিয়মিত তালমিছরি খেলে উপকার পাওয়া যায়। সতর্কতা- যদিও এটা প্রাকৃতিকভাবে তৈরি, গ্লাইসেমিক ইন্ডেক্স (GI) এর পরিমান ৩৫% থাকে,তাও অনুরোধ থাকবে, যারা ডায়াবেটিক এর রোগী, তারা ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী খাবেন

তোকমা বা (pignut/ chan/Holy Basil Seed)

৳ 30.00
তোকমার দানায় প্রতি ১০০ গ্রামে লৌহ, ক্যালসিয়াম, থিয়ামিন, ম্যাংগানিজ, দস্তা, ফসফরাস, ভিটামিন-বি, ফোলেইট এবং রিবোফ্ল্যাভিন পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকে। বেশ জনপ্রিয় তোকমা’র শরবত আমাদের দেশে। আসুন দেখে নেই, কি কি উপকারিতা রয়েছে। উপকারিতা- • রক্তে শর্করা ও কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ • খনিজ পদার্থ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এ ভরপুর। • এসিডিটি দূর করে • গরমে, শরীর কে ঠান্ডা করতে সাহায্য করে। • এছাড়াও এতে প্রচুর আঁশ থাকায় হজম, কোষ্টকাঠিন্য, ডায়রিয়া, আমাশয় ইত্যাদি সমস্যায় বেশ উপকারী ভূমিকা রাখে।